News - ডিজিটাল ডিভাইস রফতানিকারী দেশ হতে চাই: পলক

ডিজিটাল ডিভাইস রফতানিকারী দেশ হতে চাই: পলক

13th September, 2019 Priyo
ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, দেশে প্রতি বছর হাজারো ডিজিটাল ডিভাইস ইমপোর্ট করতে হয়। আমরা চাই এমন একটি ইকোসিস্টেম তৈরি করতে যা আমাদের ডিজিটাল ডিভাইস রফতানিকারী দেশে পরিণত করবে।

শুক্রবার (১৩ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর কারওয়ান বাজারের জনতা টাওয়ার সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্ক মিলনায়তনে ‘ডিজিটাল ডিভাইস অ্যান্ড ইনোভেশন এক্সপো-২০১৯’ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন, হাইটেকপার্কের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হোসনে আরা বেগম, বিসিএস সভাপতি শহীদ উল মুনীর, আইসিটি বিভাগের অতিরিক্ত সচিব পার্থপ্রতিম দেব।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশে এখন অনেক ইনোভেটর আছেন, তাদের কাছে অনেক সুন্দর সুন্দর আইডিয়া রয়েছে। কিন্তু তাদের সবারই নিজেদের স্ট্যাটাস বাঁচিয়ে রাখার জন্য অনেক ইনভেস্টমেন্ট প্রয়োজন। আমরা সরকার থেকে অনেক চেষ্টা করছি কিন্তু সবাইকে এত ইনভেস্টমেন্ট দেওয়া সম্ভব না। তাই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আইসিটি উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয় সমাধান দিলেন— একটা ম্যাচমেকিং সিস্টেম দাঁড় করাতে; একজন লোকাল এন্টারপ্রেনর তাদের আইডিয়া শো-কেস করবেন আর অন্য বিনিয়োগকারীরা আসবেন প্রোডাক্ট অনুযায়ী সেই সব আইডিয়া প্রজেক্টে বিনিয়োগ করবেন।

রোবট সোফিয়াকে বাংলাদেশে আনতে কোটি কোটি টাকা খরচ হয়েছিল—এমন অসত্য তথ্য উড়িয়ে দিয়ে পলক বলেন, বাংলাদেশে সোফিয়াকে আনতে খরচ হয়েছিল মাত্র ৭০ থেকে ৮০ লাখ টাকা, যা একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান বহন করেছিল। এটি আনার প্রধান উদ্দেশ্য ছিল রোবট সম্পর্কে মানুষের মাঝে একটি আলোড়ন তৈরি করা। সোফিয়া আমাদের মাঝে যে আলোড়ন তৈরি করেছিল তার প্রতিফলন হচ্ছে ‘লি রোবট’।

অনুষ্ঠানে পার্থপ্রতিম দেব বলেন, আমরা চাই বাংলাদেশ একসময় ডিজিটাল এক্সপোর্ট কান্ট্রি হিসেবে বিশ্বে মাথা তুলে দাঁড়াবে। সেই লক্ষ্যে ডিজিটাল ডিভাইস অ্যান্ড ইনোভেশন এক্সপোর আয়োজন করা।

হোসনে আরা বেগম বলেন, তথ্যপ্রযুক্তিতে বাংলাদেশ বিশ্বের রোল মডেল, আমরা ইতিমধ্যে বাংলাদেশের বিভাগীয় শহরগুলোতে হাইটেকপার্ক স্থাপন করেছি, যার মাধ্যমে দেশে স্টার্টআপের ইকোসিস্টেম গড়ে তোলার চেষ্টা করা হচ্ছে। এর ফলে আমরা অদূর ভবিষ্যতে তথ্যপ্রযুক্তি খাতে বিশ্বে অন্যতম একটি স্থান করে নিতে সক্ষম হব।

আগামী ১৪ অক্টোবর থেকে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে তিন দিনব্যাপী ডিজিটাল ডিভাইস অ্যান্ড ইনোভেশন এক্সপো-২০১৯ অনুষ্ঠিত হবে। যেখানে বাংলাদেশের ২০টি সরকারি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় অংশ নেবে৷